দশে ১০ স্বর্ণ জিতে তীর-ধনুকের খেলায় ইতিহাস

0
59
শাওন মুন্সীঃ পোখারার আরচারি কমপ্লেক্সে রাজশাহীর সন্দেশ। আরচারি কর্তারা সবাইকে সন্দেশ দিয়ে মিষ্টিমুখ করাচ্ছেন। আত্মবিশ্বাস ছিল। তাই সাধারণ সম্পাদক কাজী রাজীব উদ্দিন আহমেদ চপল আগেই বাংলাদেশ থেকে সন্দেশ আনিয়ে রেখেছিলেন। ঐতিহাসিক এই সাফল্যে সোমবার সবাইকে মিষ্টিমুখ করাচ্ছিলেন বাংলাদেশ আরচারি ফেডারেশনের কর্তারা। বাংলাদেশের কোনো ডিসিপ্লিনে আন্তর্জাতিক আসরে শতভাগ সাফল্যের নজির নেই। সেই সঙ্গে তিনটি করে স্বর্ণ জিতে হ্যাটট্রিক সোনাজয়ের হাসি ছিল রোমান সানা, ইতি খাতুন ও সোহেল রানার মুখে। বাংলাদেশের জেতা ১৯ স্বর্ণপদকের মধ্যে ১০টিই এসেছে আরচারি থেকে। আরচারিতে চার স্বর্ণপদক জয়ের দিনে ছেলেদের ক্রিকেটেও স্বর্ণ জিতেছে বাংলাদেশ। ঢাকায় হয়নি। গৌহাটিতেও কোনো স্বর্ণপদক ছিল না আরচারিতে। নেপাল যেন দু’হাত ভরে দিল লাল-সবুজ আরচারদের। এক গেমসেই রেকর্ড গড়লেন দেশের তীরন্দাজরা। ১০টি ইভেন্টের সবক’টিতে স্বর্ণপদক জিতেছে বাংলাদেশ। আগেরদিন ছয়টি স্বর্ণ জেতা হয়েছিল। বাকি ছিল চারটি। কাল বাকি ইভেন্টের সোনাগুলোও আসে লাল-সবুজ তীরন্দাজদের ঘরে। গত পরশু দলগত ও মিশ্র বিভাগে ছিল ছয়টি স্বর্ণ। কাল ব্যক্তিগত বিভাগে এসেছে আরও চারটি স্বর্ণ। কাল ব্যক্তিগত ইভেন্টে কম্পাউন্ড মহিলায় সোমা বিশ্বাস, পুরুষে সোহেল রানা, রিকার্ভ পুরুষে রোমান সানা ও মহিলায় ইতি খাতুন স্বর্ণ জেতেন। এক যুগের একটু বেশি সময় আরচারিতে পথচলা বাংলাদেশের। এই সময়ের মধ্যে এত সাফল্যের কারণ সম্পর্কে ফেডারেশনের সভাপতি মইনুল ইসলাম বলেন, ‘আমাদের মূল বিষয় শৃঙ্খলা। শৃঙ্খলা দিয়েই আমরা এতদূর এসেছি। সামনে আরও যেতে চাই।’ আনুষ্ঠানিক অন্যান্য বিষয়ে খরচ না করে অ্যাথলেটদের দিকেই তাদের মনোযোগ, ‘আমরা অনেক অনুষ্ঠানে এক ফুল ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে দিই। কিন্তু আরচারদের প্রশিক্ষণ ও খাওয়া-দাওয়ায় সর্বোচ্চ খরচের চেষ্টা করি। এই গেমসে আসার কয়েক দিন আগেও ২৩ লাখ টাকা খরচ করে আরচারি সরঞ্জামাদি কিনেছি।’ ২০২০ টোকিও অলিম্পিকে খেলতে যাওয়া রোমান সানা বলেন, ‘আমাদের ফেডারেশনকে অন্যরা অনুসরণ করতে পারে। ক্রীড়াবিদদের কীভাবে পরিচর্যা করতে হয় সেটা আরচারি করে দেখিয়েছে।’ বাংলাদেশের আরচারির এই সাফল্যের পেছনে অন্যতম অবদান জার্মান কোচ ফ্রেডরিক মার্টিনের। তার কথা, ‘বাংলাদেশ আরচারি এখন একটা ভিত পেয়েছে। এখান থেকে অনেকদূর এগিয়ে যেতে হবে।’ বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের মহাসচিব সৈয়দ শাহেদ রেজার বিশেষ দৃষ্টিতে এখন দেশের আরচারি, ‘আরচারি সরাসরি অলিম্পিকে খেলবে। পাশাপাশি সাউথ এশিয়ান (এসএ) গেমসে ১০টি স্বর্ণ জিতল। মানে আরচারির অনেক সম্ভাবনা আন্তর্জাতিক অঙ্গনে। বিওএ অবশ্যই এটা দেখবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here