তীব্র শীতে পথ শিশুদের পথেই জীবন

0
102

মানুষের মানবতা এবং মনুষ্যত্ব দিন দিন হ্রাস পাচ্ছে। যার ফলে পথশিশুর সংখ্যাও বৃদ্ধি পাচ্ছে। অনাথ ও এতিম শিশুদের নিয়ে ভাবলে সত্যিই অবাক হই। যাদের এই দুনিয়ার মানুষ চায় না, দূর-দূর করে তাড়িয়ে দেয়, তাদের কথা ভাবলে সত্যিই চোখে জল আসে। এই তীব্র শীতে তারা কোথায় যাবে, কোথায় রাত কাটাবে? কনকনে শীতে তাদের শরীরের হাড়গুলোসহ কাপঁবে, তবুও পথেই থাকতে হবে তাদের।

জন্মই আমার আজন্ম পাপ’। সত্যিই তাদের এই পৃথিবীতে জন্ম নেওয়াটাই মস্ত ভুল, চরম পাপ। আমরাতো বেশ সুখেই আছি, এই শীতেও বেশ সুখেই থাকবো। তীব্র ঠান্ডায় আমরা শীত নিবারণ করতে দামি শীতের পোশাক থেকে শুরু করে বিলাসবহুল কম্বল। ধনীর আদুরে সন্তানটি হয়তবা হাত-মুখ ধৌতকরণেও পাবে গরম পানি।

ঢাকা নগরীর বিভিন্ন জায়গা একদল শিশু কিশোরদের দেখতে পাওয়া যায় রাস্তায় থাকছে, খাচ্ছে এবং ঘুমাচ্ছে। জীবনের আনন্দ উল্লাস, সুখ দু:খের গল্প ,জীবনের শিক্ষা, হারানোর গল্প, প্রাপ্তির হাসিখুশি, অপ্রাপ্তির লম্বা হিসেব সবই খুঁজে নেয় পথের ধারে। বাবা মায়ের আর্থিক দূরাবস্থা ,কারো বাবা নেই, কারো মা নেই, অথবা উভয়েই ইহলীলা সাঙ্গ করে পাড়ি জমিয়েছেন ঐ পাড়ে আর এপাড়ে রেখে গিয়েছেন অসহায় শিশু সন্তান। যাদের অনেকেই নিরুপায় হয়ে ইচ্ছায় কিংবা অনিচ্ছায় ক্ষুধার যন্ত্রনায় পথের ধারে বসে থাকে কিছু পাওয়ার আশায়। মানুষও সহানুভূতিশীল হয়ে সাহায্য করে যে যার মত করে কিন্তু এই সাহায্য সাময়িক কিন্তু কী আছে তাদের ভবিষ্যতে? এর সঠিক উত্তর কে জানে?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here