ইতালী সহ ইউরোপে বেরেই চলেছে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা

0
95

জাকির হোসেন সুমন, ব্যুরো চীফ ইউরোপ : ইউরোপ জুরেই চলছে করোনা ভাইরাস আতংক । তবে ইউরোপের দেশ ইতালীতে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে ।

গত কয়েক সপ্তাহের ব্যবধানে গত সোমবার পর্যন্ত ইতালীতে আক্রান্ত র সংখ্যা বেরে দাঁড়িয়েছে ২৭হাজার ৯ শত ৪০ জন। ভেনিস সহ পুরো ইতালীতে মৃত্যুর সংখ্যা ২ হাজার ১ শত ৫৮ জন , আর সুস্থ হয়েছে মোট ২ হাজার ৮ শত ৫৩ জন। সোমবার সন্ধ্যা পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী মৃত্যুর সংখ্যা ৩ শত ৪৯ জন।

ইতালী সহ ইউরোপে বেরেই চলেছে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা 1

ইতালী সরকার চেষ্টা করছে করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে যা যা করা দরকার। বিনা কারনে ঘর হতে বের হতে বারন করা হয়েছে।

সরকারের নির্দেশ অনুযায়ী ফার্মেসী , সুপার মার্কেট , আলিমেন্টারী ছারা সকল ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ১৪ দিনের জন্য বন্ধ ঘোষনা অব্যাহত রয়েছে। অন্যান্নদের পাশাপাশি বাংলাদেশী প্রতিষ্ঠান গুলো ও বন্ধ থাকায় বিপুল অংকের টাকার ক্ষতিী সম্মুখীন হতে হচ্ছে প্রবাসী বাংলাদেশী ব্যবসায়ীদের । পাশাপাশি বেকার হয়ে গেছেন বহু বাংলাদেশী।
ইতালীয়ান সহ প্রবাসী বাংলাদেশী সকলেই ঘরে বন্দী জীবন যাপন করছেন। বাচ্চারাও বের হতে পারছে না। এখানকার স্কুল , কলেজ , বিশ্ববিদ্যালয় গুলো বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। রাস্তায় বিনা কারনে যেনো কেই না বের হয় সে জন্য প্রশাসন কঠোর দৃষ্টি রাখছেন। টহল পুলিশের তৎপরতা চোখে পরার মতো। ইতি মধ্যে বেশ কয়েক জনকে জরীমানা করা হয়েছে বিনা কারনে ঘর হতে বের হওয়ার জন্য। সবাই আতংকিত অবস্থায় রয়েছে। আপর দিকে ইউরোপের দেশ গুলোর মধ্যে স্পেন , ফ্রান্স , ডেনমার্ক , অস্ট্রিয়া , পর্তুগাল , জার্মান , সুইজারল্যান্ড সহ বেশ কয়েকটি দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। সেসব দেশ গুলোর মধ্যে বসবাস রত বাংলাদেশীরাও রয়েছেন আতংকে । এ সব দেশের ধর্মীয় উপাসনালয় গুলো বন্ধ রাখা হয়েছে। সুইজারল্যান্ডের জুরিখ এ বসবাসরত সুলতানা খান জানান, সেখানে করোনা ভাইরাসের কারনে জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পরেছে ঘর হতে বের হতে পারছেন্না ভয়ে। অস্ট্রিয়ার ভিয়েনায় বসবাসরত মো: মনির হোসেন জানান, স্ত্রী সন্তানূের নিয়ে আতংকে দিন কাটাচ্ছি মসজিদে নামাজ পড়া বন্ধ হয়ে গেছে । রাস্তাঘাট ও ফাকা। স্পেনের বার্সেলোনায় বসবাসরত তানিয়া আক্তার জানান, রেড এলার্ট জারী করায় বাচ্চাদের নিয়ে বেরুতে পারছিনা , ওরা ঘরের ভিতর থেকে থেকে হাপিয়ে উঠেছে । ডেনমার্কে বসবাসরত চিএশিল্পী কাজল জানান সেখানে প্রবাসী বাংলাূেশীরা সত্রক অবস্হায় আছেন , তবে কোন বাংলাদেশী করোনায় আক্রান্ত হয়নি ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here